President Message

সভাপতির বানি,

মানুষ গড়ার আঙিনায় যোগ্য কারিগরের বিকল্প নাই। শিক্ষার আলোয় আলোকিত দেশ, জাতি তথা বিশ্ব মানবতার মুক্তির মশাল নিয়ে যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ২০০৪ সাল হতে অনবরত আলো ছড়িয়ে আসছে, এই স্কুলের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক ও সম্মানিত পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে সুস্বাগতম, অভিনন্দন। শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন তথা তথ্য-প্রযুক্তি ও আধুনিক যুগোপযোগী শিক্ষার সৎ, দক্ষ ও মেধাবী মানুষ তৈরীর লক্ষ্যে আমাদের পথ চলা প্রধানমন্ত্রী তথা শিক্ষাবিদ, মনীষি ও জ্ঞানতাপস মানুষের আকাঙ্খা পূরণে ডিজিটাল সোনার বাংলা গড়তে সোনার মানুষের দিশারী হতে আমরা অঙ্গীকারাবদ্ধ। স্বাক্ষরতা ও অজ্ঞতার বেড়াজাল ছিন্ন করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। সময়ের প্রয়োজনে গতানুগতিকতার বিপরীতে সৃজনশীল, বাস্তবধর্মী, কর্মমুখী ও আনন্দময় শিক্ষার পরিবেশ আনয়নের ব্রত নিয়ে ১৯৫২ সালের এক উষার সোনালী আলোয় আমরা যাত্রা শুরু করি। সৃষ্টিশীলতার হাত ধরে আমরা দিনাজপুরে একটি ব্যতিক্রমি শিক্ষাঙ্গনের প্রত্যয়ে কাজ করছি। আমাদের এ পথ চলায় আপনাদের পাশে পেয়ে আমরা গর্বিত। আমাদের আকুণ্ঠ সমর্থন এবং সহযোগিতায় আমাদের পথকে প্রশস্ত করেছে; আমরা যে মহান উদ্দেশ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করি সেটি আজ কচিপল্লব থেকে মহীরূপে রূপান্তরিত হয়েছে এ কৃতিত্বে আপনাদের অবদান অনেক বেশী। আমরা সম্পদের সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে আপনার সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করার জন্য যে দায়িত্ব/কর্তব্য পালন করে আসছি তা সব সময় উন্নতির ধারায় অব্যাহত আছে। আমাদের সাথে আছেন সর্বজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষাবিদ জনাব শামসুন নাহার আপা। যাকে একালের বেগম রোকেয়া হিসাবে চিহ্নিত করা যায়।শিশুদের মানষিক ও মেধার পূর্ণ বিকাশে অনলাইন সুবিধা সমূহ লাইব্রেরী, কম্পিউটার ল্যাব, সাইন্স ল্যাব, ডিবেট ক্লাব, স্পোর্টস ক্লাব, কালচারাল ক্লাবসহ অত্যাধুনিক মানের কো-কারিকুলাম। আরো থাকবে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম। শিক্ষার গুণতগত মানোন্নয়নে এতোদিন যা অর্জন করেছি তা সম্ভব হয়েছে আপনাদের সহযোগিতার ফলে। এই স্কুল-এর সুন্দর ভবিষ্যৎ আগামী দিনের প্রত্যাশায়।

মোঃ আনোয়ার হোসেন